হাতে নেই কাজ তবুও আয় মাসে কোটি টাকা, মালাইকা আরোরার আয়ের উৎস কী

একটাও ছবি না করে কিভাবে এত আয় করেন মালাইকা, জানলে চমকে যাবেন

বয়স প্রায় ৫০ ছুঁই ছুঁই, কিন্তু এই বয়সেও রূপের ছয়টায় আজও পুরুষের হৃদয়ে ঝড় তুলতে পারেন মালাইকা আরোরা (Malaika Arora)। বলিউডের (Bollywood) এই সুন্দরী কখনও তথাকথিত নায়িকা ছিলেন না। তাকে কিছু ছবিতে কেবল আইটেম ডান্সার হিসেবে দেখা দিয়েছে। তবে কয়েক মিনিটের নাচগানেই কার্যত সেই ছবির প্রতি দর্শকদের আকর্ষণ বাড়িয়ে দিয়েছেন মালাইকা। প্রায় ৩০ বছর ধরে তার চেহারাতে নেই কোনও পরিবর্তন। উল্টে গ্ল্যামার ক্রমশ বেড়েছে।

শরীরের ফিটনেস থেকে ফ্যাশন, স্টাইল স্টেটমেন্ট সবেতেই এযুগের তরুণীদের টেক্কা দিতে পারেন মালাইকা। তার ফ্যাশন সেন্সের জন্য তিনি সর্বদা সংবাদমাধ্যমের নজর কেড়ে নেন। দেখতে দেখতে ৪৯ বছরে পা দিয়ে ফেললেন মালাইকা। তবে এখনও তাকে দেখলে তার আসল বয়স বুঝে উঠতে পারবে না কেউ। বলিউডের এই আইটেম গার্ল তথাকথিত নায়িকাদের থেকেও একজন সেলিব্রিটি।

জীবনে একটাও ছবিতে নায়িকার চরিত্র পাননি, তবে তার পারিশ্রমিক জানলে আপনি চমকে যাবেন। এখন তো তাকে কোনও ছবিতেই দেখা যায় না। তবুও বিলাসবহুল জীবনযাপন করেন তিনি। মালাইকা পর্দার সামনে অভিনয় করেন না বটে, কিন্তু তার রোজগার থেমে নেই। আর পাঁচজন বলিউড অভিনেত্রীর তুলনায় কোনও অংশে তিনি কিছু কম উপার্জন করেন না মাসে।

মালাইকাকে ইদানিং বেশকিছু রিয়েলিটি শোয়ের বিচারকের আসনে বসে থাকতে দেখা যায়। শো পিছু তার উপার্জন জানলে চমকে যাবেন। আসলে নোরা ফাতেহিসহ অন্যান্য বলিউড আইটেম ড্যান্সারদের দাপটে ছবিতে কোণঠাসা হয়ে পড়েছেন মালাইকা। সেই সঙ্গে ইদানিং বলিউড নায়িকারাও আইটেম ড্যান্সে ঢুকে পড়ছেন। তাই ছবিতে মালাইকা পিছিয়েই পড়ছিলেন। কিন্তু রিয়েলিটি শো এবং ফ্যাশন শো গুলোতে তার কদর কিন্তু দিন প্রতিদিন বাড়ছে।

প্রত্যেক রিয়েলিটি শো এবং ফ্যাশন শো থেকে মালাইকা যে পারিশ্রমিক নেন তা আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না। শোনা যায় এক একটি ফ্যাশন শোয়ের জন্যই নাকি তার পারিশ্রমিক শুরু হয় ২ লক্ষ টাকা থেকে। ২ থেকে ৬ লক্ষ টাকা পর্যন্ত তিনি উপার্জন করেন এই সমস্ত শোয়ের র‌্যাম্পে হেঁটে। আর রিয়েলিটি শোতে তো তার এক একটি পর্ব থেকেই লক্ষ টাকার উপরে উপার্জন করেন মালাইকা।

রিয়েলিটি শোয়ের প্রত্যেক এপিসোড মালাইকার উপার্জন এক লক্ষ টাকা বলে জানা যায়। ২০২১ সালে তার সম্পত্তির পরিমাণ ছিল ৭৫ কোটি টাকা। সেটা ২০২২ সালে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০০ কোটিতে। করোনাকালে প্রচুর মানুষ কাজ হারিয়েছেন, তবে মালাইকা কিন্তু দু হাত ভরে রোজগার করেছেন।