অর্ণব গোস্বামীকে কেন গ্রেফতার করা হয়েছে, কী অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে

সম্প্রতি মুম্বাই পুলিশ (Mumbai Police) গ্রেফতার করেছে রিপাবলিক টিভির (Republic TV) এডিটর ইন চিফ অর্নব গোস্বামীকে (Arnab Goswam)। তবে নতুন কোনো ঘটনাসুত্রে নয়, পুরোনো মামলার সূত্রেই গ্রেফতার করা হয়েছে তাকে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার। দেখে নেওয়া যাক ঠিক কোন সূত্রে অর্নব গোস্বামীকে গ্রেফতার করেছে মুম্বাই পুলিশ।

ঘটনাটি ২ বছর আগের। রিপাবলিক টিভি শুরু হওয়ার এক বছর পর। ২০১৮ সালের মে মাসে কনকোর্ডে ডিজাইন প্রাইভেট লিমিটেড নামে একটি সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর, ৫৩ বছর বয়সী ইন্টিরিয় ডিজাইনার অন্বয় নায়েক (Anvay Nayak) এবং তার মা এর দেহ উদ্ধার হয় আলিবাগের কবির গ্রামের বাড়ি থেকে।

এই ঘটনায় অন্বয়ের স্ত্রী অক্ষতা পুলিশে অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশের হাতে আসে একটি সুইসাইড নোট (Suisite Note)। সেই নোটে লেখা ছিল অর্নব গোস্বামীর নাম। নোটে লেখা ছিল, অর্ণব গোস্বামী, ফিরোজ শেখ এবং নীতেশ সারদার থেকে ৫.৪ কোটি টাকা পাওয়ার কথা ছিল তার, কিন্তু তা না দেওয়ায় বাধ্য হয়ে আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছেন তিনি।

জানা যাচ্ছে অন্বয়ের ওই সংস্থার থেকে নানারকম সুবিধা নিত রিপাবলিক টিভি। এই সুইসাইড নোট উদ্ধার হওয়ার পরে অর্ণব, ফিরোজ ও নীতিশের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনার মামলা দায়ের করে পুলিশ। অভিযুক্ত ফিরোজ ছিলেন আইক্যাস্টএক্স টেকনোলজিস প্রাইভেট লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা এবং সারদা ছিলেন স্মার্ট ওয়ার্কের প্রতিষ্ঠাতা।

আলিবাগ পুলিশের এফআইআর সূত্রে জানা যায়, ফিরোজ ৪ কোটি টাকা দেননি অন্ময় কে। অন্যদিকে নীতিশের কাছ থেকে ৫৫ লাখ পাওয়ার কথা ছিল অণ্ময় এর যেটা দেওয়া হয়নি তাকে। এই দুই অভিযুক্তকেও গ্রেফতার করেছে মুম্বাই পুলিশ। এআরজি আউটলায়ার মিডিয়া থেকে ৮৩ লাখ পাওয়ার কথা ছিল অন্ময়ের। এই সংস্থার অধীনেই আছে চ্যানেল রিপাবলিক টিভি (Republic TV)। তবে জোরালো প্রমাণের অভাবে গত বছর এই মামলা বন্ধ করে দেওয়া হয়।

এই ঘটনার পরে আলিবাগ পুলিশের বিরুদ্ধে তদন্তে গাফিলতির অভিযোগ তোলেন অন্বয়ের মেয়ে আদনিয়া। তিনি এই অভিযোগ নিয়ে মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখের কাছে হাজির হন। তার অভিযোগ মঞ্জুর করা হয় এবং চলতি বছরের মে মাসে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, অন্বয় ও তাঁর মা’র মৃত্যুর ঘটনা নতুন করে তদন্ত করবে পুলিশ।

এই ঘটনার পর অন্বয়ের স্ত্রী’র একটি ভিডিও প্রকাশ্যে আনে মহারাষ্ট্র প্রদেশ কংগ্রেস। ভিডিওতে অন্বয়ের স্ত্রী সরাসরি অভিযোগ করে অর্নব গোস্বামীর বিরুদ্ধে। এই ভিডিও ফুটেজ সামনে আসার পরেই এফআইআর দায়ের করা হয় অর্নব গোস্বামীর বিরুদ্ধে।

এইসব অভিযোগ সম্পূর্ণ ভাবে নাকোচ করে দিয়ে রিপাবলিক টিভি জানায়, অন্বয়কে ৯০ শতাংশ টাকা মিটিয়ে দিয়েছিলেন তারা।বাকি হিসেবও মিটিয়ে দিতে চেয়েছিলেন তারা, কিন্তু পারেননি। অন্বয় কে একাধিকবার চেষ্টা করেও না পাওয়ায় বাকি টাকা তারা মেটাতে পারেনি, এমনটাই জানিয়েছে Republic TV।তাদের দাবি, উপযুক্ত প্রমাণও আছে তাদের কাছে।

তবে শুধু এই মামলাই নয়, সম্প্রতি তরুণ অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঘটনায় এবং পালঘর হত্যাকাণ্ডকে ঘিরে মুম্বাই পুলিশের তীব্র সমালোচনায় মুখর হয় Republic TV। এর পরেই  ভুয়ো টিআরপি মামলায় জড়িয়ে পড়ে রিপাবলিক টিভির (Republic TV) নাম যার ফলে এই চ্যানেলের সব সম্পাদকীয় কর্মীদের বিরুদ্ধেই এফআইআর দায়ের করা হয় যাদের মধ্যে চ্যানেলের এডিটর ইন চিফ অর্নব গোস্বামীর (Arnab Goswam) নাম আছে।