আশেপাশে করোনা আক্রান্ত কেউ আছেন কিনা বলে দেবে এই অ্যাপ

all you need to know about aarogya-setu-app

করোনাভাইরাস নিয়ে ক্রমশ আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ছে দেশবাসীর মনে। মানুষের মধ্যে সংক্রমণ যাতে না ছড়ায় তার জন্য দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। কিন্তু, খাবার থেকে শুরু করে অত্যাবশ্য়ক পণ্য বা প্রয়োজনের খাতিরে অনেক সময় অনেককেই বেরোতে হচ্ছে। আর সেখানেই ওৎ পেতে রয়েছে বিপদ। কখন কার থেকে করোনার ভাইরাস আরেকজনের শরীরে চলে আসবে তার কোনও হদিস ও আন্দাজ পাওয়া যাচ্ছে না।

আর এখানেই, মানুষের এই উদ্বেগের প্রশমন ঘটাতে এগিয়ে এল কেন্দ্র।  সম্প্রতি, কেন্দ্রীয় সরকার একটি মোবাইল অ্যাপ (অ্যাপলিকেশন) চালু করেছে। ‘আরোগ্য সেতু’ নামের এই অ্যাপের উপকারিতা হল– কোনও কোভিড-১৯ পজিটিভ ব্যক্তি যদি আপনার ধারেকাছে চলে আসে, সঙ্গে সঙ্গে তা জানান দেবে। জানা গিয়েছে, ব্লু-টুথ ও লোকেশন নির্ভর সোশাল গ্রাফ মারফৎ এই অ্যাপ কোভিড-১৯ আক্রান্তদের ট্র্যাক করে।

মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত প্রায় ৫০ মিলিয়ন মানুষ ডাউনলোড করেছেন এই অ্যাপ। মিনিটে প্রায় ১ লাখ লোক অ্যাপ ডাউনলোড করতে থাকেন। জনপ্রিয় অ্যাপ পোকেমন গো-ও ৫০ মিলিয়ন মানুষ ডাউনলোড করেছিল ১৯ দিনে। অর্থাৎ ৬ দিন কম সময়েই আরোগ্য সেতু সেই মাইলস্টোন পার করল।

এই অ্যাপে ১১টি ভাষায় ইউজারদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এখানে প্রত্যেকের পরিচয় ও তথ্য গোপন রাখা হচ্ছে। কী কী করলে সংক্রমণ থেকে দূরে থাকা যায় ও চিকিৎসা বিষয়ক উপদেশ পাওয়া যাচ্ছে এই অ্যাপে।
কারও যদি করোনা-পজিটিভ হয়ে থাকে, কিংবা করোনা-ঝুঁকি খুব বেশি হয়ে থাকে, তাহলে সেই সংক্রান্তে তথ্যা সার্ভারে আপলোড করা হয়, স্বাস্থ্য দফতরে জানানো হয়। তারপরই কনট্যাক্ট চেনে থাকা সবাইকে এই ব্যাপারে জানানো হয়।

কেন্দ্রীয় সরকারের স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ডা. কে বিজয় রাঘবন জানান, ধরা যাক একজন, A, ট্রেনে চড়ে কাজে গেলেন, আবার ফিরে এলেন বাড়িতে। তারপর তাঁর সংক্রমণের উপসর্গ দেখা দিল, পরীক্ষা করে দেখা গেল করোনা-পজিটিভ, তখন ওই ব্যক্তির সংস্পর্শে আসা বা আশেপাশে থাকা মানুষদের কাছে সতর্কবার্তা পৌঁছে যাবে। কোনও করোনা-পজিটিভ মানুষের সংস্পর্শে আসা সব মানুষকে সতরেক করাই আরোগ্য সেতু অ্যাপের উদ্দেশ্যে।

কীভাবে ব্যবহার করবেন এই অ্যাপ?

১. অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস গ্ৰাহকরাই এই অ্যাপ ডাউনলোড করতে পারবেন।Aarogya setu নামে সার্চ করে ডাউনলোড করতে হবে।

২. ইনস্টল করার পর গ্ৰাহকরা নিজের পছন্দের ভাষা ব্যবহার করতে পারবেন। বাংলা, হিন্দি, ইংরেজি ছাড়াও ভারতের অনান্য প্রাদেশিক ভাষায় এই অ্যাপ ব্যবহার করা যাবে।

৩. ইনফরমেশন স্ক্রিনের ওপর রেজিস্ট্রার বাটন সিলেক্ট করতে হবে।

আরও পড়ুন :- কবে বিদায় নেবে করোনা জানাল করোনার ভবিষ্যৎবাণী করা কিশোর

৪. ব্লুটুথ ও জিপিএস ডেটা ব্যবহার করে ট্র্যাকিং করবে আরোগ্য সেতু অ্যাপ। এই দুই পার্মিশন দিতে হবে। রেজিস্ট্রেশনের জন্য ১০ সংখ্যার ফোন নম্বর টাইপ করতে হবে। এরপর উত্তর দিতে হবে প্রশ্নের।

ওটিপি দিয়ে লগ ইন করলে আপনার কোভিড ১৯ সংক্রমণের ঝুঁকির পরিমাণ জানিয়ে দেবে এই অ্যাপ। সবুজ রং দেখালে আপনার সংক্রমণের সম্ভবনা কম। হলুদ রং দেখালে আপনার সংক্রমণের সম্ভবনা বেশি।
নিজেই নিজের ঝুঁকির পরিমাণ বুঝে নিয়ে এই পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন। হেল্প সেন্টারে গিয়ে নিজের শহর সিলেক্ট করলেই পাওয়া যাবে বিভিন্ন তথ্য।