নেবেন না তো অডিশনের নাটক করলেন কেন, খুদেদের বাদ দেওয়ায় সারেগামাপার বিরুদ্ধে ফুঁসছে নেট পাড়া

সারেগামাপা থেকে আচমকাই বাদ পড়লো সব খুদে, কারণ জেনে রাগে ফুঁসছে নেটপাড়া

SA RE GA MA PA

শুরু হয়ে গিয়েছে সংগীতের মহাযুদ্ধ। জি বাংলার (Zee Bangla) সারেগামাপার (Sa Re Ga Ma Pa) নতুন সিজনে চূড়ান্ত বাছাইপর্ব চলছে জোর কদমে। সারা রাজ্য এমনকি দেশের বাইরে থেকেও প্রতিযোগিরা এসে উপস্থিত হয়েছেন এখানে। তাদের মধ্যে থেকে খুদে প্রতিযোগীরাও নজর কেড়েছে। কখনও কখনও বড়দের ছাপিয়ে পারফরম্যান্স তুলে ধরেছে তারা বিচারকদের সামনে।

তবে সারেগামাপার পরবর্তী এপিসোডগুলোতে আর দেখা যাবে না এই খুদে প্রতিযোগীদের। সম্প্রতি এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিচারকমণ্ডলী। দর্শক থেকে বিচারক সকলেই ছোটদের পারফরমেন্সে মুগ্ধ হলেও প্রতিযোগিতাতে তাদের সফর এখানেই শেষ হল। বিচারকদের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিলেন পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী।

এই ছোট ছোট গায়ক এবং গায়িকাদের মূল প্রতিযোগিতা থেকে দূরে রাখার পরামর্শ দিয়েছিলেন বর্ষিয়ান গায়ক। তার মতে এতো অল্প বয়সে প্রতিযোগিতায় মনোনিবেশ করলে শিশুদের ক্ষতি হতে পারে। তাই এই মর্মে যুক্তি দেখিয়ে বিচারকদের তরফ থেকেই সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী।

তার কথায়, ‘স্কুলের পড়াশোনা এবং নানা চাপের মধ্যে দিয়ে ওদের বড় হতে হয়। আমার অভিজ্ঞতা থেকে মনে হয়, পড়াশোনা থেকে আলাদা করে ওদের এই প্রতিযোগিতায় রাখাটা আমাদের পক্ষে খুব একটা উপযুক্ত কাজ হবে না।’ এই বিষয়ে বাবা-মায়েদের মতামতও নিয়েছিলেন তিনি। তারাও বিচারকদের সঙ্গে একমত।

যদিও পন্ডিতজি জানিয়েছেন মূল প্রতিযোগিতার সঙ্গে যুক্ত না থাকলেও অনুষ্ঠানের সঙ্গে সম্পূর্ণভাবে যুক্ত থাকবে এই খুদে শিল্পীরা। মাঝেমধ্যেই মঞ্চে এসে তারা গান শুনিয়ে যাবে। বিচারকদের এই সিদ্ধান্তে কার্যত দুই দলে ভাগ হয়ে গিয়েছেন নেটিজেনরা। একদলের মতে, শিশুদের মঙ্গলের কথা ভেবে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অন্য দলের দাবি, এই বিষয়টা বাছাই পর্ব শুরু হওয়ার আগেই মাথায় রাখা উচিত ছিল।