অবস্থা অত্যন্ত সংকটজনক! ভেন্টিলেশনেই হার্ট অ্যাটাক ঐন্দ্রিলা শর্মার, রইল অভিনেত্রীর লেটেস্ট হেলথ আপডেট

ভেন্টিলেশনে পর পর হার্ট অ্যাটাক, চরম সঙ্কটে অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা

Aindrila Sharma

মঙ্গলবার সারাটা দিন ঐন্দ্রিলা শর্মাকে (Aindrila Sharma) নিয়ে উদ্বেগের মধ্যেই কেটেছে টলিউডের। বুধবার সকাল সকাল মিলল আরও বড় দুঃসংবাদ। অবস্থার অবনতি হতে ঐন্দ্রিলাকে আবার ভেন্টিলেশনেই রেখেছিলেন চিকিৎসকরা। ভেন্টিলেশনেই হৃদরোগে আক্রান্ত হলেন ঐন্দ্রিলা। তার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়েছে বলেই জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা।

টানা ২ সপ্তাহ ভেন্টিলেশনে জীবন-মৃত্যুর লড়াইয়ের পর বুধবার সকাল ১০ টা নাগাদ হৃদরোগে আক্রান্ত হন ঐন্দ্রিলা। হাসপাতালে তরফ থেকে তার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে এমনটাই জানানো হয়েছে। এতে অভিনেত্রীর অবস্থা আরও বেশি সংকটজনক হয়ে উঠেছে। বর্তমানে তাকে সিপিআর দেওয়া হচ্ছে। ঐন্দ্রিলার সম্পর্কে এই খবর জেনে উদ্বিগ্ন তার অনুরাগীরা।

গত সপ্তাহেও তার শারীরিক পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়। যে কারণে তাকে ভেন্টিলেশন থেকে বের করে আনা হয়েছিল। তবে সোমবার সব্যসাচীর একটি পোস্ট থেকে চিন্তা বাড়তে শুরু করে ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে। সব্যসাচী তার পোস্টে সকলকে অনুরোধ করে লিখেছিলেন মন থেকে ঐন্দ্রিলার জন্য প্রার্থনা করুন। সেই সঙ্গে তিনি মিরাকেলের আশাও রেখেছিলেন। তবে আচমকাই আবার ঘটে গেল এই বিপত্তি।

হাসপাতালের তরফ থেকে জানানো হয়েছিল ব্রেন স্ট্রোকের পর ঐন্দ্রিলার মস্তিষ্কের অপারেশন করানোর হয়েছিল। তবে মস্তিষ্কের যেদিকে অপারেশন করানো হয়েছিল তার বিপরীত দিকে রক্ত জমাট বাঁধতে শুরু করেছে। এই ব্লাড ক্লট এতটাই ক্ষুদ্র যে সেগুলো অপারেশন করা সম্ভব নয়। তাই ওষুধের মাধ্যমে তাকে সুস্থ করে তোলার চেষ্টা করছিলেন চিকিৎসকরা। যে কারণে তার ওষুধে কিছু পরিবর্তন আনা হয়।

গত কয়েকদিন ধরেই ঐন্দ্রিলার শারীরিক অবনতির খবর মিলেছে। তার সংক্রমণ কমেনি। বারবার জ্বর আসছিল। এরই মধ্যে বুধবার সকালে নতুন করে কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট ঐন্দ্রিলার বিপত্তি আরও বাড়লো বলে মনে করছেন চিকিৎসকরা। ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়ে ২ বার জিতে ফিরে এসেছিলেন তিনি। তার ফিরে আসার অপেক্ষায় রয়েছে গোটা টলিউড। তবে চিকিৎসকরা আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন ঐন্দ্রিলার শারীরিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল নয়।

ঐন্দ্রিলা সম্পর্কে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভুয়ো খবর ছড়িয়ে পড়াতে প্রতিবাদ করে সব্যসাচী জানিয়েছিলেন ঐন্দ্রিলা লড়ছেন। কেউ যেন গুজবে কান না দেন। তিনি নিজের হাতে করে তাকে হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছেন, নিজের হাতেই তাকে ফিরিয়ে নিয়ে যাবেন। সব্যসাচীর বিশ্বাসে আস্থা রেখেছিলেন অনুরাগীরাও। তবে ভেন্টিলেশনেই হার্ট অ্যাটাকের পর ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে উদ্বেগ বাড়লো বই কমলো না।