জীবন-মৃত্যুর মুখোমুখি ঐন্দ্রিলা, পাগলের মত অবস্থা সব্যসাচীর, মেয়ের অবস্থা জানাতে গিয়ে ভেঙে পড়লেন মা

‘মা হয়ে আর সহ্য করতে পারছি না’! মেয়ের অবস্থা জানাতে গিয়ে ভেঙে পড়লেন ঐন্দ্রিলার মা

‘আমাকে অনেক কাজ করতে হবে’, ‘অনেক বড় হতে হবে’, এই স্বপ্ন বুকে নিয়েই মারণ রোগ ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে গিয়েছেন ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma)। পরপর ২ বার মৃত্যুর কোল থেকে ফিরে এসেছেন বাংলা সিরিয়ালের (Bengali Mega Serial) এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী। চোখে তার স্বপ্ন ছিল অনেক বড় হওয়ার। সেই তিনিই এখন হাওড়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে আই সি ইউ তে ভর্তি। মৃত্যুর সঙ্গে বোঝাপড়াটা তার যে এখনও বাকি!

গত মঙ্গলবার রাতে মস্তিষ্কের রক্তক্ষরণজনিত কারণে অসুস্থ হয়ে পড়েন ঐন্দ্রিলা। সাত তাড়াতাড়ি তাকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেদিন ঠিক কী হয়েছিল ঐন্দ্রিলার? এখন কেমন আছেন অভিনেত্রী? সবকিছু জানিয়ে আনন্দবাজার অনলাইনের কাছে মুখ খুলেছেন ঐন্দ্রিলার মা শিখা শর্মা। মেয়ের কথা বলতে গিয়ে রীতিমত ভেঙে পড়েছেন তিনি।

ঐন্দ্রিলার মা জানিয়েছেন, “ওর কোনও শরীর খারাপ ছিল না। একটি ছায়াছবির জন্য ওর আজ গোয়া যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু আচমকা কী যে ঘটে গেল জানি না। যে দিন মেয়েটা অসুস্থ হয়ে পড়ল, সে দিন ও প্রথমে আমাকে বলল, ‘‘মা, আমার ডান হাত উঠছে না।’’ তার পর দেখলাম, ওর ডান পাটা নড়ছে না। বলতে বলতে ৫-৭ মিনিটের মধ্যে ওর গোটা দেহে পক্ষাঘাত হল। ও বমি করতে শুরু করল। তখন আমি দারুণ দুশ্চিন্তায় পড়ে গেলাম। সব্যসাচীকে ফোন করে বললাম, ‘‘গাড়িটা নিয়ে এসো।’’

এরপর তাকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সঙ্গে সঙ্গে অপারেশনও করানো হয়। চিকিৎসক জানিয়েছেন কোনওভাবে তার শরীরে আঘাত লেগেছে। এরইমধ্যে খবর এসেছে তিনি চোখ খুলেছেন। হাসপাতালে তরফ থেকে জানানো হয়েছে ৪৮-৭২ ঘন্টা না পেরোলে কিছু বলা যাবে না। ঐন্দ্রিলার কাছে এখন রয়েছেন তার বাবা উত্তম শর্মা, দিদি ঐশ্বর্য শর্মা এবং ঐন্দ্রিলার কাছের মানুষ সব্যসাচী চৌধুরী।

গত তিনদিন ধরে হাসপাতালেই হত্যে দিয়ে পড়ে আছেন সব্যসাচী। ঐন্দ্রিলার মায়ের কথায় তিনি কেমন যেন পাগলের মত হয়ে গিয়েছেন এই অবস্থায়। আনন্দবাজারকে ঐন্দ্রিলার মা এই সম্পর্কে বলেছেন, “সব্যসাচী ঐন্দ্রিলাকে কত ভালবাসে। গত তিন দিন ধরে হাসপাতালেই পড়ে আছে ছেলেটা। ও এখন পাগলের মতো হয়ে গিয়েছে। জানি না ও কী খাচ্ছে বা স্নান করছে কি না।”

Sabyasachi Chowdhury shared health Update of Aindrila Sharma

“আমার স্বামী বললেন, ও হাসপাতাল চত্বরে একটা জায়গায় পড়ে আছে। কেউ ওকে কিছু বললে, সব্যসাচী বলছে, ‘‘আমাকে নিয়ে অত চিন্তা করতে হবে না।’’ আমাদের মতো ওর উপর দিয়েও বিরাট ঝড় যাচ্ছে এখন।” প্রত্যেকবার ঐন্দ্রিলার উপর দিয়ে যখন এরকম ঝড় বয়ে যায় তখন তা সামাল দিয়ে ওঠার পর সব্যসাচী সোশ্যাল মিডিয়াতে কলম ধরেন। এবারেও খুব তাড়াতাড়ি তার থেকে ঐন্দ্রিলার সুস্থ হয়ে ওঠার বার্তা পেতে চান ভক্তরা। খুব তাড়াতাড়ি ভাল হয়ে উঠুন ঐন্দ্রিলা, তার সতীর্থ থেকে অনুরাগী সকলেই এখন এই কামনাই করছেন।