এই ৫ সিরিয়াল ও সিনেমায় ঐন্দ্রিলার অভিনয় বাঙালির হৃদয়ে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে

এই ৫ বাংলা সিরিয়াল ও সিনেমায় ঐন্দ্রিলার অভিনয় কোনওদিনও ভোলা যাবে না

Aindrila Sharma acted in these 5 serial movies and series during her career

একটা মিরাকল, শুধু একটা মিরাকল চেয়েছিলেন হিন্দু, মুসলমান, শিখ, বৌদ্ধ নির্বিশেষে বাংলা এমনকি বাংলার বাইরে বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ। বাংলা সিরিয়ালের অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মাকে (Aindrila Sharma) চিনে হোক বা না চিনে, শুধু সোশ্যাল মিডিয়া থেকে তার অসুস্থতার খবর পেয়েই বারবার নিয়তির থেকে তার জীবন প্রার্থনা করেছিলেন সকলে। তবে নিয়তি কে খন্ডাবে?

টানা ২০ দিনের জীবন-মৃত্যুর লড়াইয়ের অবসান ঘটিয়ে চিরতরে বিদায় নিলেন ঐন্দ্রিলা। এখন শুধু তার স্মৃতিটুকুই থেকে যাবে তার আপনজনদের কাছে। আর তার অসংখ্য অনুরাগীর জন্য? থেকে যাবে তার অভিনীত সিরিয়াল এবং সিনেমাগুলোই। মারণ রোগ ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করতে করতেই অভিনয়ে হাতেখড়ি হয়েছিল তার। তখন সালটা ছিল ২০১৭।

ওই বছর ‘ঝুমুর’ ধারাবাহিকের হাত ধরে টেলিভিশনের পর্দাতে প্রথমবার অভিনয় করতে দেখা যায় ঐন্দ্রিলাকে। এই ধারাবাহিকের সেটেই সব্যসাচী রায়চৌধুরীর সঙ্গে তার প্রথম আলাপ হয়। সব্যসাচী ছিলেন তার সহ অভিনেতা। সেই থেকেই তাদের মধ্যে বন্ধুত্বের সূত্রপাত হয়। ক্রমে তিনিই হয়ে ওঠেন তার সবথেকে কাছের মানুষ। এরপর তার দ্বিতীয় সিরিয়াল ছিল জিয়ন কাঠি। ২০১৯ সালে শুরু হওয়ার পর সিরিয়ালটি চলেছিল ২০২১ সাল পর্যন্ত।

তবে শুধু সিরিয়ালের মধ্যেই আটকে থাকেননি ঐন্দ্রিলা। স্বল্প কেরিয়ারের মধ্যে দু-দুটি সিনেমাতে অভিনয় করেন ঐন্দ্রিলা। ২০২০ সালে ‘আমি দিদি নাম্বার ওয়ান’ ছবি দিয়ে তার টলিউডে হাতেখড়ি হয়। উল্লেখ্য এই সিরিয়ালে তার সহ অভিনেতা ছিলেন আদৃত রায়। বর্তমানে মিঠাই সিরিয়ালের সিদ্ধার্থের ভূমিকাতে অভিনয় করছেন তিনি।

এরপর হৃতজিৎ মুখার্জির সঙ্গে ‘লাভ ক্যাফে’ ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। ঐন্দ্রিলা তার স্বল্প অভিনয় জীবনে যতটুকু সময় কেরিয়ারের জন্য ব্যয় করতে পেরেছিলেন সেটুকু সময়ের মধ্যেই তিনি চুটিয়ে কাজ করেছেন। এমনকি অসুস্থ হওয়ার আগেও বিভিন্ন প্রজেক্ট ছিল তার হাতে। শুধু টলিউড নয়, একটি ছবিতে অভিনয়ের জন্যেও অডিশন দিয়েছিলেন তিনি।

মৃত্যুর আগে ’ভাগাড়’ ওয়েব সিরিজেও অভিনয়ের কাজ শেষ করেছিলেন ঐন্দ্রিলা। এরপর আরও একটি ছবির শুটিংয়ের জন্য শীঘ্রই তার গোয়া যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই হঠাৎ ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন ঐন্দ্রিলা। ২০ দিনের লড়াইয়ের শেষ পরিণতিতে মৃত্যুকে এড়ানো সম্ভব হল না।