‘আজকাল স্টার না হয়েও অনেকে নিজেকে সুপারস্টার ভাবে’, বিস্ফোরক অভিষেক চট্টোপাধ্যায়

তিনি টলিউডের (Tollywood) নামকরা অভিনেতা (Actor)। তার মতো সুদর্শন চেহারার অভিনেতা সুযোগ পেলে আরও বড় জায়গায় যেতে পারতেন। তবে সেই সুযোগ তিনি পাননি। নেপথ্যে, টলিউডের নোংরা ষড়যন্ত্র। সেই ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে ক্রমশ ব্যাকফুটে চলে যেতে যেতে একসময় টলিউড থেকে উধাও হয়ে যান তিনি। ঠিকই ধরেছেন, কথা হচ্ছে প্রসেনজিৎ এবং ঋতুপর্ণার নোংরা ষড়যন্ত্রের শিকার অভিষেক চট্টোপাধ্যায়কে (Abhishek Chatterjee) নিয়ে।

টলিউড দখলের লড়াইয়ে পিছিয়ে পড়তে হয়েছিল অভিষেককে। সেই যন্ত্রণা তিনি আজও বুকে বয়ে নিয়ে বেড়াচ্ছেন। তবে তিনি হাল ছাড়েননি। যাত্রা থিয়েটারের কাজ করে ‌ অভিনয় করার ইচ্ছেটাকে মনে মনে ‌পালন করেছেন। আজ তাকে টেলিভিশনের বেশ কিছু জনপ্রিয় ধারাবাহিকে অভিনয় করতে দেখা যায়। পর্দায় তার উপস্থিতিই বলে দেয় দর্শক আজও অভিষেক চ্যাটার্জীকে তাদের মনের মনিকোঠায় তুলে রেখেছেন।

Abhisekh Chatterjee HD Wallpaper

অভিষেক চ্যাটার্জীর নিজস্ব কোনও ফেসবুক একাউন্ট নেই। রয়েছে একটি ফেসবুক পেজ। যে পেজে মাঝেমধ্যেই নিজের ব্যক্তিগত মুহূর্তের কিছু ছবি শেয়ার করে থাকেন তিনি। মেয়ের জন্মদিন হোক বা বিবাহবার্ষিকী, পরিবারের সঙ্গে কোয়ালিটি টাইম কাটানোর বেশ কিছু ছবি এবং ভিডিও সেই পেজে আপলোড হয়ে থাকে। তবে তিনি নিজের কিন্তু এই সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে প্রচারের আলোয় থাকতে চান না। সম্প্রতি তার কারণ জানালেন অভিনেতা।

সাম্প্রতিক একটি সাক্ষাৎকারে অভিষেক জানিয়েছেন, তার নামের এই ফেসবুক পেজটি পরিচালনা করেন তার স্ত্রী। অভিষেক চ্যাটার্জী নিজে থেকে এইভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাকটিভ থাকতে পছন্দ করেন না। তিনি তার কাজ নিয়ে ডুবে থাকতে ভালোবাসেন। বর্তমান প্রজন্মের তারকারা। সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাক্টিভ থেকে বরাবর অনুরাগীদের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করে চলেছেন। সেই ট্রেন্ডে মোটেও গা ভাসাননি অভিষেক।

Abhisekh Chatterjee HD Wallpaper

সোশ্যাল মিডিয়ার উপর এত অনীহা কেন? অভিনেতার বক্তব্য, “আমি শুধু হোয়াটসঅ্যাপে আছি, আমি কোন ফেসবুকে নেই, আমার নিজস্ব একটা পেইজ আছে, যেটা মেনটেন করে আমার মিসেস। সেটা আমার একদম নিজস্ব পেজ। সেই পেজে ফলোয়ার প্রায় পৌনে এক লাখ থেকে এক লাখ এর কাছাকাছি। আমি শুধুমাত্র তাদের সাথেই আমার পার্সোনাল জিনিস শেয়ার করি, আমি সবার সাথে আমার পার্সোনাল জিনিস শেয়ার করতে রাজি নই।”

কিন্তু বর্তমান প্রজন্ম এবং পুরনো প্রজন্মের প্রত্যেক তারকাই প্রায় সোশ্যাল মিডিয়ার ট্রেন্ডে গা ভাসিয়েছেন। সেই জায়গা থেকে অভিষেকের দাবি, তিনি স্টার কিংবা সুপারস্টার কথাগুলিতে তেমন বিশ্বাসী নন। তিনি নিজেকে বরাবর একজন এন্টারটেইনার হিসেবে উপস্থাপিত করতে চেয়েছেন দর্শকের সামনে। এ প্রসঙ্গে তার বক্তব্য, “এই যে মানুষকে এন্টারটেইন করা, সেটা আমার কাছে বেশি ইম্পর্টেন্ট। স্টার সেলিব্রিটি এইসবের খুব একটা ভ্যালু আমার কাছে নেই। তাতে আমার কিছু আসে যায় না।”

বর্ষীয়ান এই অভিনেতা আরও বলেছেন, “স্টার অনেকে আছে। অনেকে আবার স্টার না হয়েও নিজেকে স্টার বলে দাবি করে। আবার অনেকে নিজেদের সুপারস্টার বলেও দাবি করে। আমার কাছের স্টার বা সেলিব্রিটির খুব একটা দাম নেই। আমার কাছে এন্টারটেইনার এর খুব দাম আছে।”