ছবির পর হিন্দুধর্মের অপমান বিজ্ঞাপনেও, জনরোষের মুখে আমিরের নতুন বিজ্ঞাপন

আমিরের ঘরজামাই হওয়া হল না, ফের হিন্দুধর্মকে অপমানের অভিযোগে বিদ্ধ অভিনেতা

কিছুদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়াতে মুক্তি পেয়েছিল স্মল ফাইন্যান্স ব্যাঙ্কের একটি বিজ্ঞাপন। এই বিজ্ঞাপনটিতে অভিনয় করে কার্যত এখন পস্তাচ্ছেন আমির খান (Aamir Khan) এবং কিয়ারা আডবাণী (Kiara Advani)। কারণ বিজ্ঞাপনের বিষয়বস্তু দেশের মানুষের ভাল একেবারেই লাগেনি। উল্টে আবারও হিন্দু ধর্মীয় সংস্কৃতিকে অপমানের অভিযোগ উঠছে তাদের বিরুদ্ধে।

এই বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপন দিয়েই প্রথমবার আমির এবং কিয়ারা একসঙ্গে অভিনয় করলেন। বিজ্ঞাপনে দেখানো হয় আমিরকে বিয়ে করে আনছেন কিয়ারা। গাড়ি করে নবদম্পতি কনের বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিচ্ছে। সাধারণত ভারতে হয় ঠিক এর উল্টোটা। বিয়ের পর কনেকে আসতে হয় শ্বশুরবাড়িতে। কিন্তু এখানে দেখা যাচ্ছে আমির খান বিয়ের পর যাচ্ছেন কিয়ারার বাড়িতে।

আমির বলছেন, “এই প্রথম এমন হচ্ছে বিয়ের পর নতুন ঘরে যাওয়ার সময় নতুন বউ কান্নাকাটি করছে না।” জবাবে কিয়ারা বলছেন, “তুমি তো ঘর ছাড়লে, কাঁদছ কি?” পরের দৃশ্যে দেখা যায় নবদম্পতিকে বরণ করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে কনের পরিবার। তখন আমির জিজ্ঞেস করেন, ”কে প্রথম পা রাখবে? তুমি?” কিয়ারা বলেন, “এ বাড়িতে নতুন কে? তুমি তো? তাহলে তুমিই পা রাখো”।

এইভাবে বরকে বরণ করে কনের ঘরে তোলা হল। তারপর দেখা যায় কিয়ারার বাবা অসুস্থ। তার দেখভাল করার জন্যই বাড়িতে পা রেখেছে নতুন জামাই। এরপরই দৃশ্য বদলে ব্যাঙ্কিং সংস্থা দাবি করে তারা এভাবেই সর্বস্তরে বদল এনে দিতে চায়। বিজ্ঞাপনের এই ভিডিওটি নিজে টুইটারে শেয়ার করেছিলেন ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ পরিচালক বিবেক রঞ্জন অগ্নিহোত্রী। বিষয়টি নিয়ে আমির খান এবং ওই বিজ্ঞাপনী সংস্থাকে রীতিমত ধুয়ে দিয়েছেন তিনি।

এই ভিডিওটি শেয়ার করে ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, “আমি একেবারেই বুঝতে পারছি না দুটি বিষয় কীভাবে প্রাসঙ্গিক! সমাজ, ধর্ম এবং সংস্কার নিয়ে চিন্তাভাবনা করার দায়িত্ব ব্যাঙ্ক কবে থেকে নিল?” তিনি আরও লিখেছেন, “এইসব বোকা বোকা কাজ করবে আর তারপর চিৎকার করবে হিন্দুরা ট্রোল করছে!” বিবেকের কথাকেই সমর্থন করছেন নেটিজেনরাও।

উল্লেখ্য আমিরের সময়টা এখন একেবারেই ভাল যাচ্ছে না। প্রায় সাত বছরের পুরনো তার একটি সুপার হিট সিনেমা ‘পিকে’-কে কেন্দ্র করে এখনও সমালোচিত হচ্ছেন তিনি। হিন্দু ধর্মকে অপমান করার অভিযোগে তার ড্রিম প্রজেক্ট ‘লাল সিং চাড্ডা’ও সুপার ফ্লপ হয়েছে। তার উপর আবার এখন বিজ্ঞাপনে মুখ দেখিয়েও শান্তি নেই। ওই ব্যাঙ্কিং সংস্থার পাশাপাশি আমির-কিয়ারাকেও বয়কট করার হুমকি দিচ্ছেন নেটিজেনরা।