এই ৯টি খাবার কখনোই খালি পেটে খাওয়া উচিত নয়

এখন মুখে মুখে একটি কথাই শোনা যায় খালি পেটে থাকা উচিত নয় কিছু খাওয়া উচিত। একথা ঠিক কিন্তু আসলে কি জানেন খালি পেটে আবার সব খাবার খাওয়া  যায় না।

ক্ষীদে লাগলে যেকোনো খাবারই খেতে ভালোলাগে। কিন্তু দীর্ঘ সময় খালি পেটে থেকে হুট করেই আপনি যেকোনো কিছু খেতে পারবেন না। কারণ এমন অনেক খাবার আছে যেগুলো খালি পেটে খেলে উপকার তো হবেই না বরং তা ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে।

স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার শরীরের জন্য জরুরি, একথা ঠিক কিন্তু  খাবার খাওয়ার সঠিক সময় জানা আরও জরুরি।একথা সবাই জানে যে জীবনদায়ী ঔষধ এর সময়সীমা পার হয়ে গেলে সেটাও বিষ হয়ে যায়। সম্প্রতি একটি গবেষণায় দেখা গেছে  কিছু খাবার রয়েছে যা খালি পেটে খাওয়া একদম উচিত নয়। এই খাবারগুলো অ্যাসিড তৈরি করে এবং অন্ত্রে নানান সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। চলুন দেখে নেওয়া যাক কোন খাবার গুলো খালি পেটে খাওয়া উচিৎ নয়।

১) ওষুধ

দেখবেন  গ্যাসট্রিকের কিছু কিছু ওষুধ খাওয়ার আগে খেতে দেওয়া হয়। তবে চিকিৎসকরা বেশিরভাগ ওষুধ ভরা পেটে খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। কিন্তু যখন খালি পেটে ওষুধ খাওয়া হয় তখন এটা পাকস্থলিতে একটা অস্বস্থিকর অবস্থার সৃষ্টি করে।

২) সোডা

Loading...

সোডার মধ্যে আছে  উচ্চ পরিমাণ কাবোর্নেটেট অ্যাসিড। খালি পেটে সোডা খাওয়া হলে এই অ্যাসিড স্বাস্থ্যের সমস্যা সৃষ্টি করে এবং সেই সঙ্গে বমিবমি ভাব তৈরি হয় ।

৩) টমেটো

টমেটো খালি পেটে খাওয়া উচিত নয় ,কারণ এর মধ্যে থাকা অ্যাসিড গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল  অ্যাসিড এর সাথে মিশে পাকস্থলির মধ্যে বিক্রিয়া করে এক ধরনের অদ্রবণীয় জেল তৈরি করে; যা ভবিষ্যতে আপনার পাকস্থলিতে পাথর হওয়ার কারণ হতে পারে।

৪) মদ্যপান

মদ্যপান, এটাতো  কখনই শরীরের পক্ষে ভালো নয়। তবে  খালি পেটে মদ্যপান আরো ক্ষতিকর। মদের মধ্যে যেসব উপাদান থাকে  সেগুলো অন্ত্রের জ্বালাভাব সৃষ্টি করে।

৫) ঝাল জাতীয় খাবার

মসলাদার ঝাল খাবার বেশ মুখরোচক কিন্তু এটাই আপনার শরীর পক্ষে ক্ষতিকর। আমরা অনেকেই ঝাল জাতীয় খাবার খেতে পছন্দ করি, তবে খালি পেটে ঝাল জাতীয় খাবার খাওয়া উচিত নয়। এর ফলে অ্যাসিডক বিক্রিয়া হয়ে পেট জ্বালাভাব তৈরি হয়।

৬) দই

দই স্বাস্থ্যসম্মত এটা ঠিক। কারণ দইয়ের প্রোবায়োটিক উপাদান স্বাস্থ্যকর। কিন্তু  এটা খালি পেটে খাওয়া মোটেও স্বাস্ব্যকর নয়। দইয়ে থাকা ভালো ব্যাকটেরিয়া পাকস্থলির পরিপাক রসের সাথে মিশে পেটকে খারাপ করতে পারে।

৭) কলা

কলার ক্ষেত্রেও একই কথা, এটাও স্বাস্থ্যসম্মত সময়মতো খেলে। খালি পেটে কলা খাওয়া হঠাৎ করে শরীরে ম্যাগনেসিয়ামের পরিমান বৃদ্ধি করে। এর ফলে রক্তে ম্যাগনেসিয়াম এবং ক্যালসিয়ামের ভারস্যাম্য নষ্ট হয়। তাই  বিশেষজ্ঞদের মতে কলা খালি পেটে না খাওয়াই ভালো।

প্রচলিত ধারণা হলো, যেকোনো ফলই স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। কিন্তু সেটা কোন অবস্থায় খাওয়া উচিত, সে সম্বন্ধে আমরা অনেকেই জানি না। যেমন ধরুন, কলা স্বাস্থ্যকর ফল হলেও তা খালি পেটে খাওয়া ক্ষতিকর। হজম-সহায়ক কলায় রয়েছে প্রচুর ম্যাগনেশিয়াম ও পটাশিয়াম। খালি পেটে কলা খেলে এসব উপাদান রক্তে অন্য উপাদানগুলোর মধ্যে ভারসাম্য নষ্ট করে। বিশেষ করে শরীরে ম্যাগনেশিয়াম ও ক্যালসিয়ামের ভারসাম্য নষ্ট হয়, যা হৃৎপিণ্ড ও রক্তের ধমনির জন্য ক্ষতিকর।

আরও পড়ুন : পোস্ত খেতে ভালবাসেন? জেনে নিন রোজ পোস্ত খেলে কী কী উপকার পাবেন

৮) চা / কফি

চা, কফি খাওয়ার কোনো সময় নেই যখন পাই তখন খাই। কিন্তু কি জানেন  খালি পেটে চা ও কফি খাওয়া খুবই ক্ষতিকর চায়ের মধ্যে রয়েছে উচ্চ মাত্রায় অ্যাসিড যা পাকস্থলির আবরণকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। কফির মধ্যে রয়েছে ক্যাফিন যা পাকস্থলির ক্ষতি করে। তাই খেতে হলে আগে অন্তত একগ্লাস জল খেয়ে তারপর চা-কফি খেতে পারেন।

আরও পড়ুন : সকালে কফি? নাকি রাত্রে ফল? খালি পেটে কী কী খাবেন আর কী কী নয়?

৯) শাকসবজি

প্রচলিত ধারণা হলো, সবুজ শাকসবজি সব সময়ই স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। এ নিয়ে কোনো বিতর্ক নেই। কিন্তু প্রশ্ন হলো, কোন অবস্থায় ভালো? সবুজ শাকসবজিতে রয়েছে প্রচুর অ্যামিনো অ্যাসিড। এই অ্যাসিড শরীরের জন্য যেমন ভালো, তেমনি খালি পেটে বিষম গ্যাস্ট্রিকের সৃষ্টি করতে পারে। শাকসবজির ‘ফাইবার’ ঠিকভাবে হজম না হলে তলপেটে ব্যথাও হতে পারে।

শরীর ও মন যত ভালো থাকবে, কাজে তত আনন্দ পাবেন। তাই বলি নিজের অভ্যাস বদলে নিন আর নিজেকে সুস্থ্য রাখুন।

Loading...