করুন এই একটি ছোট্ট কাজ, ২ মিনিটেই বাপ বাপ বলে বাড়ি থেকে পালাবে টিকটিকি

বাড়ি থেকে কীভাবে চিরতরে তাড়াবেন টিকটিকি, জেনে নিন টিকটিকি তাড়ানোর ঘরোয়া উপায়

ঘরবাড়ি যতই টিপটপ রাখার চেষ্টা করুন না কেন, আরশোলা টিকটিকি মত অবাঞ্ছিত অতিথিরা এসে কার্যত সমস্যা সৃষ্টি করবেই। শরীর-স্বাস্থ্যের জন্যও টিকটিকি মারাত্মক ক্ষতিকর। এই ক্ষতিকর প্রাণীটিকে যদি ঘর থেকে দূরে রাখতে চান তাহলে শুধু ঘর পরিষ্কার রাখলেই চলবে না, তার সঙ্গে কিছু বিশেষ উপায়ও নিতে হবে। আজ এই প্রতিবেদনে রইল ঘর থেকে টিকটিকি দূর করার সহজ ৮ উপায় (How To Get Rid From Lizard) যা মেনে চললে ঘরের মধ্যে একটা টিকটিকিও থাকবে না।

ডিমের খোসা : ডিমের খোসা টিকটিকি দূর করতে সহায়ক। ঘরের মধ্যে বা রান্নাঘরের এমন জায়গায় ডিমের খোসা রেখে দিন যেখানে টিকটিকি আসে। ডিমের খোসা দেখলে টিকটিকি শিকারি বলে মনে করে এবং সাধারণত সেই জায়গার ধারেকাছেও ঘেঁষে না। গোটা ডিম মাঝ বরাবর অর্ধেক করে রাখতে পারেন। ৩-৪ সপ্তাহ অন্তর ডিমের খোসা বদলে নিন।

পেপার স্প্রে : পেপার স্প্রে টিকটিকি দূর করতে দারুণ কার্যকরী উপায়। স্প্রে বোতলে সামান্য জল এবং গোলমরিচ ভাল করে মিশিয়ে ফ্রিজ এবং সোফার পিছনে, দেয়ালে এবং যে কোনও জায়গাতে স্প্রে করতে পারেন। প্রয়োজনে ব্যবহার করতে পারেন লাল লঙ্কার গুঁড়ো অথবা ট্যাবাসকো সস। তবে এই ঝাঁজালো স্প্রে ব্যবহার করার আগে অবশ্যই মুখে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

ফ্লাইপেপার : টিকটিকি সাধারণত বাড়ির যেখানে আলো থাকে সেখানেই পোকামাকড় ধরার জন্য বেশি ঘোরাফেরা করে। তাই ঘরের বাল্বের কাছে রাখতে পারেন ফ্লাই পেপার। এভাবে সহজে টিকটিকি এবং পোকা ধরে ফেলতে পারবেন। তারপর পেপারসমেত ডাস্টবিনে ফেলে দিলেই হল।

কীটনাশক ট্যাবলেট : গ্যাস, ফ্রিজ এবং সিঙ্কের নীচে রেখে দিতে পারেন কীটনাশক ট্যাবলেট। একবার খেলেই মরে যাবে টিকটিকি। তবে বাড়িতে বাচ্চা এবং পোষ্য থাকলে যেন তাদের নাগালের বাইরে থাকে এই বিষাক্ত ট্যাবলেট।

কফি এবং তামাকের তৈরি বিষ : কিছুটা কফি এবং তামাকের গুঁড়ো নিয়ে হাতের সাহায্যে ছোট ছোট বল তৈরি করুন। তারপর টুথপিকের গোড়ায় লাগিয়ে টিকটিকি আসা-যাওয়ার পথে রেখে দিন। এই বলগুলো আসলে টিকটিকির জন্য বিষ।

রসুন : রসুনের তীব্র গন্ধ টিকটিকি সহ্য করতে পারে না। বিশেষত রান্না ঘরে রেখে দিতে পারেন রসুন। তাহলে আর ধারেকাছে টিকটিকি আসবে না।

পেঁয়াজ : রসুনের মতো পেঁয়াজের গন্ধটাও টিকটিকি সহ্য করতে পারে না। পেঁয়াজ দুই টুকরো করে নিয়ে টিকটিকি আসা-যাওয়ার পথে রেখে দিন। তাহলে টিকটিকি আর আসবে না।

ন্যাপথলিন : ন্যাপথলিনের উগ্র গন্ধ টিকটিকি একেবারেই সহ্য করতে পারে না। ঘরে পোকামাকড়ের উপদ্রব এবং টিকটিকির উপদ্রব কমানোর জন্য ব্যবহার করতে পারেন ন্যাপথলিন।