ব্যাঙ্ক থেকে গ্যাস সিলিন্ডারের দাম, আজ থেকে বদলে গেল ৫টি নিয়ম

325

১লা মে থেকে বদলে গেল বেশ কিছু নিয়ম। ব্যাঙ্কিং থেকে শুরু করে গ্যাস সিলিন্ডার বুকিং, করোনার দরুণ ভ্যাকসিনেশন প্রক্রিয়া থেকে শুরু করে বিমা সংস্থার নিয়ম-কানুন, সবেতেই বদল এনেছে কেন্দ্রীয় সরকার। যা সরাসরি প্রভাব ফেলতে চলেছে আম জনতার উপর। তাই নতুন মাসের শুরুতে কোন কোন খাতে কী কী পরিবর্তন এলো তা জেনে নেওয়া প্রয়োজন।

গ্যাস সিলিন্ডার বুকিং, ব্যাঙ্কিং সিস্টেম, করোনাকালীন ভ্যাক্সিনেশন পদ্ধতি, বিমা সংস্থার ক্ষেত্রে কিছু গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম বদলসহ বিভিন্ন জরুরি পরিষেবা খাতে একাধিক নতুন নিয়ম চালু করা হয়েছে। তাই মাসের শুরুতেই এই নতুন নিয়মগুলি সম্পর্কে জেনে নিন। যাতে পরে কোনও অসুবিধার সম্মুখীন না হতে হয়।

১. Axis Bank এর নতুন নিয়ম : ১লা মে থেকে Axis Bank এর সেভিংস অ্যাকাউন্টে ন্যূনতম ব্যালেন্স রাখার নিয়ম বদলে গেল। ন্যূনতম অ্যাভারেজ ব্যালেন্সের লিমিট ১০,০০০ থেকে বাড়িয়ে ১৫,০০০ টাকা করে দিয়েছে সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ। ফ্রি লিমিটের পর এটিএম থেকে টাকা তুললে এবার থেকে আগের তুলনায় দ্বিগুণ চার্জ দিতে হবে গ্রাহককে। একই সঙ্গে ব্যাঙ্কের অন্যান্য পরিষেবার চার্জও বাড়ানো হয়েছে।

২. ১৮-৪৫, সকলের জন্য ভ্যাক্সিনেশন প্রক্রিয়া : কেন্দ্রীয় সরকারের পূর্বঘোষণা অনুসারে ১লা মে থেকেই দেশজুড়ে ভ্যাকসিনেশনের তৃতীয় পর্যায়ে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে দেশের প্রত্যেক নাগরিককে করোনা প্রতিরোধী ভ্যাকসিন ‌প্রদান করার কাজ শুরু হয়েছে। উল্লেখ্য, এই পর্বে টিকা গ্রহণকারীদের রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

৩. ইরডা পলিসি কভারের টাকা : আরোগ্য সঞ্জীবনী পলিসির কভারের টাকা দ্বিগুণ করার নির্দেশ দিয়েছে ইরডা। ১ মে থেকে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত পলিসি কভার পেশ করতে হবে বিমা সংস্থাটিকে।

GAS Cylinder

৪. গ্যাস সিলিন্ডারের দাম : সাধারণত তেল সংস্থাগুলি প্রত্যেক মাসের প্রথম দিনেই গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম ঘোষণা করে। এবারেও অবশ্য তার অন্যথা হয়নি। তবে উল্লেখ্য, চলতি মাসে কিন্তু রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডারের দামে বিন্দুমাত্র পরিবর্তন আনেনি তেল সংস্থাগুলি। কলকাতাতে ১৪.২ কেজি গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম পড়ছে ৮৪৫.৫০ টাকা। যা গত মাসের তুলনায় বাড়েওনি, আবার কমও হয়নি।

আরও পড়ুন : করোনা থেকে বাঁচতে বাড়িতে হাতের কাছে রাখুন এই ৫টি ওষুধ

৫. মে মাসে ব্যাঙ্ক ছুটি : মে মাসের ব্যাঙ্কের ক্যালেন্ডার বলছে চলতি মাসে ১২ দিন ব্যাঙ্ক ছুটি রয়েছে। তবে এর মধ্যে বেশকিছু ছুটি কেবল নির্দিষ্ট রাজ্যের জন্যেই প্রযোজ্য। বাকি জায়গাগুলিতে ব্যাঙ্ক খোলা থাকবে।

আরও পড়ুন : সর্দি জ্বর ও করোনা জ্বরের পার্থক্য, কীভাবে বুঝবেন আপনি করোনা আক্রান্ত