কুকীর্তি করতে গিয়ে ধরা পড়ে জেলের ঘানি টেনেছেন এই ৫ বলিউড সেলিব্রিটি

জীবনের বেশিরভাগ সময়টাই জেলে কাটিয়েছেন বলিউডের এই ৫ তারকাদের, দেখুন অভিনেতাদের সম্পূর্ণ তালিকা

0

বলিউড (Bollywood) অভিনেতা এবং অভিনেত্রীরা বেশ কিছু মামলায় (Court Case) জড়িয়ে আইন-আদালতের চক্কর কেটেছেন বহুবার। এই তালিকার নবতম সংযোজন রাজ কুন্দ্রা (Raj Kundra)। তবে রাজের আগেও বলিউডের তাবড় তাবড় সেলিব্রেটিদের নাম জড়িয়েছিল বিভিন্ন মামলায়। জেনে নিন বলিউডের কোন কোন তারকা কুকর্ম করার অপরাধে জেল (Jail) খেটেছেন।

রাজ কুন্দ্রা (Raj Kundra) : বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টির স্বামীকে গত ১৯শে জুলাই গ্রেপ্তার করেছে মুম্বাই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ। পুলিশের অভিযোগ, রাজ বেআইনিভাবে অশ্লীল ভিডিও বানিয়ে তারা সোশ্যাল মিডিয়াকে হাতিয়ার করে ছড়িয়ে দিতেন। বলিউডের একাধিক মডেল অভিনেত্রীই রাজের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪২০ ধারা (প্রতারণা), ৩৪ ধারা, ২৯২ এবং ২৯৩ ধারা (অশ্লীল বিজ্ঞাপন এবং প্রদর্শনী) এবং তার সঙ্গে আইটি অ্যাক্ট ও Indecent Representation of Women (Prohibition) Act-এর বিভিন্ন ধারায় মামলা করা হয়েছে রাজের বিরুদ্ধে। এই মামলার কারণে বিগত প্রায় ১ মাস ধরে জেল হেফাজতেই রয়েছেন রাজ কুন্দ্রা।

Shilpa Shetty Husband Raj Kundra Arrested (2)

রিয়া চক্রবর্তী (Rhea Chakraborty) : বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পরেই তার প্রেমিকার তথা মডেল অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে উত্তাল হয়ে ওঠে নেট দুনিয়া। সুশান্তের আত্মহত্যার পিছনে রিয়ার হাত রয়েছে বলে অভিযোগ করেন সুশান্ত অনুরাগীদের একাংশ। পরে এই মামলার তদন্ত করতে গিয়ে রিয়ার বিরুদ্ধে মাদকযোগের হদিস পায় পুলিশ। যে মামলার পরিপ্রেক্ষিতে বেশ কিছু দিন জেলেই কাটাতে হয়েছিল তাকে। ২৮ দিন পর ১ লাখ টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন পেয়েছিলেন রিয়া।

সালমান খান (Salman Khan) : কৃষ্ণসার হরিণের বেআইনি শিকার করার দায়ে মামলা হয়েছিল সালমানের বিরুদ্ধে। ১৯৯৮ সালে হাম সাথ সাথ হ্যায় ছবির শ্যুটিং করতে গিয়ে কৃষ্ণসার হরিণ শিকার করেন সালমান খান। সেই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ১৮ দিনের জেল হেফাজতের শাস্তি পেয়েছিলেন তিনি। পরে আবার ‘হিট অ্যান্ড রান’ মামলাতেও জড়িয়ে পড়েছিলেন সালমান।

সঞ্জয় দত্ত (Sanjay Dutt) : বলিউডের এই অভিনেতা মুম্বাই হামলার সঙ্গে জড়িত দুষ্কৃতীদের থেকে অস্ত্র নিয়ে নিজের কাছে লুকিয়ে রাখার দায়ে দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন। তার বাড়িতে তদন্ত চালিয়ে একে ৫৬ রাইফেল খুঁজে পেয়েছিল পুলিশ। ১৯৯৩ সালের মুম্বাই হামলার ঘটনার সঙ্গে সঞ্জয় দত্তের যোগসুত্র খুঁজে পেয়ে বেআইনি অস্ত্র রাখার অপরাধে সুপ্রিম কোর্টের তরফ থেকে Arms Act-এর অধীনে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড পেয়েছিলেন সঞ্জয় দত্ত। ২০১৩ সালে ফের পুনের Yerwada Jail-এ পাঠানো হয় তাকে। অবশেষে সাজা কাটিয়ে ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে তিনি ছাড়া পান।

শাইনি আহুজা (Shiney Ahuja) : বলিউডে তার কেরিয়ার যখন শীর্ষে, ঠিক তখনই ধর্ষণের মামলায় ফেঁসে যান তিনি। ২০০৯ সালে তার বাড়ির পরিচারিকা তার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তুলেছিলেন। এই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে প্রায় সাড়ে তিন মাস তাকে জেলেই কাটাতে হয়েছিল। ২০১১ সালে অবশ্য মুম্বাই হাইকোর্ট তার জামিনের আবেদন মঞ্জুর করে।