৯০ দশকের ৩ ক্রিকেটার যারা এখনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেননি

ফর্ম থাকলে যে কোনও খেলাতেই স্বচ্ছন্দে খেলে যেতে পারেন সেখানে বয়স গৌন হয়ে যায়। বয়সের সাথে যুদ্ধ করে যেকোনও ক্রীড়াবিদের চলা খুবই কঠিন। আর ক্রিকেটের মাঠে টিকে থাকার জন্য একজন ক্রিকেটারের সর্বোচ্চ স্তরের ফিটনেস প্রয়োজন। কোন ক্রিকেটারই আজীবন তাঁর সেরা পারফর্মেন্স দিতে পারেনা।

বিশেষত যে ক্রিকেটাররা ৯০ দশকে নিজেদের কেরিয়ার শুরু করেছিলেন, তাদের মধ্যে অনেকেই আজ ২২ গজের মাঠ কে বিদায় জানিয়েছেন। তবে ক্রিকেটের ইতিহাসে এমন ৩ জন ক্রিকেটার আছেন যারা এখনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেন নি। চলুন চিনে নেওয়া যাক সময়ের সঙ্গে হার না মানা ৩ ক্রিকেটারকে।

১) শোয়েব মালিক

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মালিকের কেরিয়ার শুরু হয় ১৯৯৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে। মাত্র ১৭ বছর বয়সে অফ স্পিনার হিসেবে প্রথম ম্যাচ খেলেন তিনি। তবে সময়ের সাথে সাথে ব্যাটিংয়েও তিনি তার দক্ষতা দেখান।

শেষের দিকে তার ব্যাট করা দেখে দলের কোচ তাকে টপ অর্ডারে ব্যাট করার সুযোগ করে দেন আর এরপরেই তিনি হয়ে ওঠেন পাকিস্তানি দলের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান তথা অলরাউন্ডার। টেস্ট ক্রিকেট থেকে বিদায় ঘোষণা করলেও টি-২০ ফরম্যাটে এখনো খেলেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মোট ১২টি সেঞ্চুরি সহ ১১ হাজারেরও বেশি রান করেছেন এবং ২০০টির বেশি উইকেট রয়েছে তার দখলে।

২) ক্রিস গেইল

‘দ্যা ইউনিভার্স বস’ ক্রিস গেইল, তাঁর আন্তর্জাতিক কেরিয়ার শুরু করেছিল ১৯৯৯ সালে ভারতের বিপক্ষে। মাত্র ১ রান করেই মাঠ থেকে ফিরে যেতে হয়েছিল তাকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই অলরাউন্ডার পরবর্তীকালে একের পর এক রেকর্ড করেছে।

টেস্ট ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেও এখনো আইপিএল খেলছেন তিনি। টেস্ট ক্রিকেটের প্রথম বলে ছক্কা মারার রেকর্ড রয়েছে তার।

আরও পড়ুন : ক্রিস গেইলের ক্রিকেট কেরিয়ারে ৫ টি লজ্জাজনক অধ্যায়

এখনও পর্যন্ত গেইল ছাড়া বিশ্বের আর কোনও ব্যাটসম্যান এটি রেকর্ড ভাঙতে পারেননি। আবার ক্রিস গেইলের সর্বাধিক টি-টোয়েন্টি রানও একটি রেকর্ড। অন্যদিকে আবার গেইল বিশ্বের প্রথম ব্যাটসম্যান যিনি ওডিআই বিশ্বকাপে ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন।

৩) হরভজন সিং

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বেরিয়ে এসেছেন হরভজন সিং। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে মাঠ থেকে বিদায় নেওয়ার এখনো বাকি রয়েছে। ভাজির আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিশেখ হয় ১৯৯৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে। অনিল কুম্বলের সঙ্গে স্পিনিং জুটি বেঁধে ভারতকে আন্তর্জাতিক স্তরে বোলিং পাওয়ার হাউসে তৈরি করেছিলেন তিনি। চেন্নাই দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হরভজন সিং।

সুরেশ রায়নার পর ‘ব্যক্তিগত কারণে’ IPL 2020 থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন হরভজন সিং! ২০০৭ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং ২০১১ সালে ওয়ান ডে বিশ্বকাপ জিতেছিলেন হরভজন সিং।

আরও পড়ুন : সর্বকালের সেরা নিঃস্বার্থ ক্রিকেটার নিয়ে গঠিত হলো ক্রিকেট একাদশ

২০১৬ সালে টি-টোয়েন্টি এশিয়া কাপে ভারতের হয়ে শেষবার কুড়ি-কুড়ির ক্রিকেটে খেলেন ভাজ্জি।২০১৮ সালের আইপিএল নিলামে দু কোটি টাকার বেশ প্রাইসে চেন্নাই ফ্র্যাঞ্চাইজি তাঁকে দলে নেয়। গত মরশুমে সিএসকে-এর হয়ে ১১ ম্যাচে ১৬টি উইকেট নিয়েছিলেন ভাজ্জি।