৪০ পেরোলেও চেহারায় থাকবে ২০ এর গ্ল্যামার! চির যৌবন পেতে রোজ করুন ছোট্ট এই কাজ

৪০ পেরোলেই ত্বক তার স্বাভাবিক সৌন্দর্য হারাতে শুরু করে। ত্বক কুঁচকে যাওয়া থেকে শুরু করে জেল্লাহীন নিষ্প্রাণ ত্বকের প্রবণতা বাড়ে। এই সময় নিয়মিত ত্বকের যত্ন না নিলে মেচেতার মত দাগছোপে ভরে উঠবে মুখ। বয়স ৪০ পেরোলে ত্বক এবং শরীরের অতিরিক্ত কিছু যত্ন নেওয়া দরকার। যেমন পর্যাপ্ত পরিমাণ জল পান করা, বাইরে বেরোনোর আগে সানস্ক্রিনের ব্যবহার যেমন জরুরী তেমনই শরীরের যত্নে প্রয়োজন যোগাসন (Yogasana)।

পর্যাপ্ত পরিমাণ জল খেলে ত্বক ভেতর থেকে আর্দ্রতা পাবে। ত্বকে সানস্ক্রিনের ব্যবহার বাইরের ধুলাবালি এবং অতিবেগুনি রশ্মির হাত থেকে রক্ষা করবে। তবে শরীরের যত্ন নিতে যোগাসন খুবই জরুরী। জানেন কি যোগাসনেও কিন্তু ত্বকের জেল্লা বাড়ে? চিরযৌবন লাভের জন্য কোন কোন যোগাসন করবেন? জেনে নিন এই প্রতিবেদন থেকে (3 Yogasana For Glowing Skin)।

হলাসন : এই আসনটি রক্ত সঞ্চালনার জন্য খুবই ভাল। নিয়মিত এই আসন করলে অনিদ্রার সমস্যা দূর হয়। ভাল ঘুম হলে ত্বকের ক্লান্তির ছাপ মুছে গিয়ে চেহারাও চনমনে থাকে। যোগাসন করার সময় প্রথমে চিত হয়ে শুয়ে পড়তে হবে। তারপর কোমরে ভর দিয়ে পা দুটোকে আস্তে আস্তে ওপরে তুলতে হবে ৯০ ডিগ্রি কোণে।

এবার হাতের তালুতে চাপ দিয়ে পা দুটোকে মাথার উপর দিয়ে পেছনের দিকে নিয়ে যেতে হবে। এরপর পিঠ ধীরে ধীরে মাটি থেকে এমনভাবে তুলুন যাতে পায়ের আঙ্গুলগুলো মাটি স্পর্শ করতে পারে। ধীরে ধীরে বুকের কাছে থুতনি নিয়ে আসতে হবে।

সর্বাঙ্গাসন : এই আসনের ফলে শরীরে রক্ত সঞ্চালন বাড়ে যার ফলে ব্রণ, ত্বক বুড়িয়ে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা পাবেন। এর জন্য প্রথমে হলাসনের মত শুয়ে পড়ে পিঠের উপর ভর দিয়ে পেলভিস ও পা দুটোকে সোজাসুজি উপরে তুলতে হবে। কাঁধ, টরসো, পেলভিস, পা এবং পায়ের পাতা একই সরলরেখায় রাখতে হবে। থুতনি বুকে স্পর্শ করুন এবং দৃষ্টি পায়ের পাতার দিকে স্থির রাখুন।

ধনুরাসন : এই আসন নিয়মিত করলে মানসিক চাপ কমে। পেটের উপর চ্যাট করার কারণে হজম শক্তি বাড়বে এবং পেট পরিষ্কার থাকবে। এই আসনের জন্য উপুর হয়ে শুয়ে হাটু ভাঁজ করে পায়ের পাতা যতটা সম্ভব পিঠের দিকে নিয়ে আসতে হবে। তারপর মেঝে থেকে বুক পর্যন্ত হাঁটু ও উরু তোলার চেষ্টা করুন। পেট মেঝেতে রেখে উপরের দিকে তাকান। স্বাভাবিক শ্বাস-প্রশ্বাস নিয়ে ২০ থেকে ৩০ সেকেন্ড এভাবেই থাকুন। এইভাবে ৩ বার আসন করতে হবে।