টাকা ফেললেই প্রাইমারি চাকরি, ফাঁস হয়ে গেল প্রতারণা চক্র

52

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের নামে প্রতারণা চক্র। সন্দেহবশত অভিযোগ, তারপরই পুলিশের হাতে ধরা পরল দুই প্রতারক। প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যান অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে হানা দিতে দেখলে এমন ঘটনা তারপর দুই প্রতারককারীকে হাতেনাতে ধরে তুলে দেওয়া হয় পুলিশে।

ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুরে শিক্ষা সংসদ দপ্তরের সামনে। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার ডিএলএড পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের সার্টিফিকেট বিলি চলছিল দফতরেরই একটি ঘরে বসে। দলবল নিয়ে উত্তীর্ণ প্রার্থীদের শংসাপত্র ভেরিফিকেশন করছিল একদল লোক। টাকা দিলেই চাকরি মিলবে এমন প্রতিশ্রুতিও দিচ্ছিল ওই দলবলের লোকজন।

খবর পেয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যান নারায়ণ সাঁতরা ওই ঘরে হানা দিলে ধরা পড়ে যায় ২ প্রতারক। যদিও বাকিরা ঘটনাস্থল থেকে চম্পট দেয়। ধৃতদের কোতয়ালি থানার হাতে তুলে দেওয়া হয়।

এদিন সকাল থেকেই প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের সামনে ছিল বড় জটলা। তা দেখে প্রথম থেকে সন্দেহ হয় প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের কর্মীদের। এসময় ইতিমধ্যেই অভিনন্দন প্রামাণিক নামে এক চাকরিপ্রার্থী অভিযোগ করেন মোটা টাকার বিনিময় চাকরি পাইয়ে দেওয়ার প্রলোভন দিচ্ছেন জয়ন্ত ভট্টাচার্য্য নামে এক ব্যক্তি। ওই দল বলের তরফ থেকে জানানো হয় কাউন্সিলিং এর জন্য ডাকা হচ্ছে এবং ভেরিফিকেশনের জন্য সমস্ত আসল নথিপত্র আনার কথা বলা হচ্ছে।

আর এই বিষয়ে সন্দেহ হয় এবং অভিনন্দন নামে ওই চাকরিপ্রার্থী প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এরপরই সংসদের কর্মীরা ওই ঘরে হানা দেয়। হা না দিতেই দেখা যায় ৬ থেকে ৭ জন ব্যক্তি কাগজপত্র হাতে নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। সংসদের কর্মীরা তাদের প্রশ্ন করতেই ঘটনাস্থল থেকে বাকিরা চম্পট দিলেও ধরা পড়ে যায় দুজন। যাদের নাম জয়ন্ত ভট্টাচার্য ও চিরশ্রী দে।

সংসদের কর্মীরা তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করলে কথাবার্তায় মেলে অসঙ্গতি। অসংগতি পাওয়ার পর ওই দুই ব্যক্তিকে তুলে দেওয়া হয় কোতয়ালী থানার হাতে। পুলিশ ও জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করলে মেলে অজস্র অসংগতি। তারপরেই তাদের দুজনকে আটক করা হয়।

যদিও বিডিও জয়ন্ত ভট্টাচার্যের দাবি, তিনি পেশায় একজন আইনজীবী। প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে হাইকোর্টে একটি মামলা করছিলেন তিনি। সে কারণেই কলকাতা থেকে মেদিনীপুরে এসেছিলেন শিক্ষা সংসদের সামনে। কোতয়ালী থানার পুলিশ পুরো ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে এবং সংসদের কোনো কর্মী এই ঘটনার সাথে যুক্ত রয়েছেন কিনা তাও দেখা হচ্ছে।

Loading...